এডমিশন টিউন https://www.admissiontune.com/2022/02/medical-admission.html

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ২০২১-২০২২ । dghs.gov.bd

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ২০২০-২০২১ প্রকাশিত হয়েছে। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন। ৫ এপ্রিল ২০২২ দুপুর ১টার সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করবেন। 
মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষা

মেডিকেল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। সরকারী ও বেসরকারী মেডিকেল ভর্তি সার্কুলার ও আবেদন যােগ্যতা ২০২১-২০২২ নিয়ে আজকে বিস্তারিত আলোচনা করবো। ২০২২ শিক্ষাবর্ষে মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তির আবেদন বিজ্ঞপ্তি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর dghs.gov.bd ও dgme.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। 

মেডিকেল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

মেডিকেল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ অনুসারে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২২ এর আবেদন ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে। মেডিকেল ভর্তি নীতিমালা ২০২২ অনুসারে এবারও এসএসসি ও এইচএসসি মিলে মোট জিপিএ ৯.০০ লাগবে। চলুন একনজরে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা সম্পর্কে সবকিছু দেখে নেওয়া যাক। 
মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২০২২ সার্কুলার
আবেদন শুরুঃ ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২
আবেদন শেষঃ ১০ মার্চ ২০২২
আবেদন ফিঃ ১০০০ টাকা
মেডিকেল ভর্তি পরিক্ষার তারিখঃ ০১ এপ্রিল ২০২২
প্রবেশপত্র ডাউনেলোডের সময়ঃ ২৬-২৯ মার্চ ২০২২
আবেদন লিংকঃ dgme.teletalk.com.bd

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যতা

যে সকল শিক্ষার্থী বাংলাদেশের নাগরিক এবং যারা ২০১৮ বা ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় এবং ২০২০ বা ২০২১ সালে এইচএসসি বা সমমানের উভয় পরীক্ষায় পদার্থ, রসায়ন ও জীববিজ্ঞান সহ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তারা ভর্তির আবেদন করার যােগ্য হবেন। তবে ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের পূর্বে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদনের যােগ্য বলে বিবেচিত হবেন না।

বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যম যেকোনো শিক্ষা কার্যক্রমে এসএসসি বা সমমান এবং এইচএসসি বা সমমান দুটি পরীক্ষায় মােট জিপিএ কমপক্ষে ৯.০০ থাকতে হবে। সকল উপজাতি ও পার্বত্য জেলার অ-উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে এসএসসি/ সমমান এবং এইচএসসি/ সমমান পরীক্ষায় মােট জিপিএ কমপক্ষে ৮.০০ থাকতে হবে। তবে এককভাবে (শুধুমাত্র এসএসসি বা এইচএসসি) কোন পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৫০-এর কম হলে আবেদনের যােগ্য বলে বিবেচিত হবেন না।

আবেদন করতে ইচ্ছুক সকল শিক্ষার্থীর জন্যে এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষায় জীববিজ্ঞানে ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ থাকতে হবে।

গত ২৪শে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২০২২ সার্কুলার প্রকাশ করেছে। বিএমডিসি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২২ সম্পর্কে নতুন নীতিমালাটি প্রকাশ করেছেন যা আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি। 

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন ২০২১ অনুসারে মোট ১০০ নম্বরের বহুনির্বাচনি প্রশ্ন পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা মোট ৫টি বিষয়ের উপর অনুষ্ঠিত হবে। নিচে এগুলোর মানবন্টন উল্লেখ করা হলোঃ 
বিষয়ের নাম নম্বর
জীববিজ্ঞান৩০
রসায়ন ২৫
পদার্থবিজ্ঞান ২০
ইংরেজি ১৫
সাধারণ জ্ঞান ১০

নম্বর কর্তন

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ করে নেগেটিভ মার্কিং করা হয়। অর্থাৎ আপনার একটি এমসিকিউ সঠিক হলে ১ নম্বর পাবেন। অন্যদিকে ১টি এমসিকিউ ভুল হলে ১.২৫ নম্বর কমে যাবে। আশা করি নেগেটিভ মার্কিং পদ্ধতি সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। 

তাছাড়া মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সেকেন্ড টাইমারদের অর্থাৎ যারা এইচএসসি পরীক্ষা ২০২০ সালে দিয়েছেন তাদের অতিরিক্ত ০৫ নম্বর কর্তন করা হবে। অর্থাৎ কোন সেকেন্ড টাইমার যদি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ১০০ এর মধ্যে ৭০ নম্বর পায় তাহলে সে ৬৫ নম্বর পেয়েছে বলে বিবেচিত হবে। 

অন্যদিকে যারা বর্তমানে কোন সরকারি মেডিকেল বা ডেন্টাল কলেজে অধ্যায়নরত রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৭.৫ নম্বর কর্তন করা হবে। বেসরকারি কিংবা এএফএমসি মেডিকেলের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে না। 

পাশ নম্বর

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২২ এ পাস নম্বর হলো ৪০। অর্থাৎ একজন শিক্ষার্থী ১০০ নম্বরের মধ্যে ৪০ নম্বর পেলে সে পাশ করেছে বলে বিবেচিত হবে। অন্যদিকে কেউ ৪০ এরকম হলে অকৃতকার্য বলে বিবেচিত হবে।উল্লেখ্য যে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় শুধুমাত্র পাশকৃত শিক্ষার্থীদের মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হয়। 

জিপিএ এর উপর নম্বর

এসএসসি এবং এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর উপর ভিত্তি করে ২০০ নম্বরের একটি মূল্যায়ন ব্যবস্থা রয়েছে। এটি কিভাবে করা হয় তা নিচে উল্লেখ করা হলোঃ 
  • এইচএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ এর ২৫ গুণ = প্রাপ্ত জিপিএ X ১৫ = এইচএসসি জিপিএ থেকে প্রাপ্ত নম্বর
  • এসএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ এর ১৫ গুণ প্রাপ্ত জিপিএ X ১৫ = এসএসসি জিপিএ থেকে প্রাপ্ত নম্বর
মোট নম্বর = মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর + এইচএসসি জিপিএ থেকে প্রাপ্ত নম্বর + এসএসসি জিপিএ থেকে প্রাপ্ত নম্বর। আশা করি এই বিষয়টি খুব সহজে বুঝতে পেরেছেন। 

মেডিকেল ভর্তি সার্কুলার ২০২২

মেডিকেল ভর্তি সার্কুলার ২০২২ ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। উপরে আমরা মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার বিভিন্ন খুঁটিনাটি দিক সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এবার আমরা আপনাদের সাথে মূল সার্কুলার শেয়ার করব। নিচের বাটনে চাপ দিয়ে আপনি মেডিকেল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ দেখে নিতে পারবেন। 

আবেদনের নিয়মাবলী

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ঘরে বসে অনলাইনে করা যাবে। আবেদন করার জন্য আপনি নিচের আবেদন লিংক এর উপর চাপ দিন অথবা সরাসরি dghs.teletalk.com.bd এই ওয়েবসাইটে চলে যান।আবেদন করার পূর্বে আবেদন ফরম টি দেখে নিবেন এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সাথে নিয়ে বসবেন।মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার আবেদন যত দ্রুত করবেন আপনার জন্য তত ভালো। আপনি আবেদন দেরিতে করলে আপনার ভর্তি পরীক্ষার আসন কাঙ্খিত জেলায় নাও পড়তে পারে। 

মেডিকেলে আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যাদিঃ 

১. এসএসসি ও এইচএসসি এর তথ্যঃ এখানে আপনার এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন ও প্রাপ্ত জিপিএ দিতে হবে। 

২. ছবিঃ সদ্য তোলা এবং স্ক্যান করা কিংবা ডিজিটাল ক্যামেরায় তােলা ছবি দিতে হবে এবং মাপ হবে 300 x 300 pixel. তবে ছবির ফাইল সাইজ ১০০ কেবি এর বেশী হতে পারবে না। ছবি অবশ্যই .jpg ফরমেটে হতে হবে। 

৩. স্বাক্ষরঃ একটি সাদা কাগজে স্পষ্ট করে আপনার স্বাক্ষর দিতে হবে এবং সেটি স্ক্যান করতে হবে। স্বাক্ষরের তারিখে দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। মনে রাখবেন স্বাক্ষরকে অবশ্যই আপনার হতে হবে কারণ পরীক্ষার হলে স্বাক্ষর নেওয়ার সময় এই স্বাক্ষরের সাথে মিলানো হবে। স্ক্যানকৃত স্বাক্ষরের মাপ 300 x 80 pixel হতে হবে। তবে ফাইল সাইজ ৬০ কেবি এর বেশী হতে পারবে না। এটি অবশ্যই .jpg ফরমেটে হতে হবে। 

আবেদন ফি জমাদানের পদ্ধতি

মেডিকেল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এর আবেদন করার সময় প্রাপ্ত User ID ব্যবহার করে প্রার্থীকে আবেদন ফি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে জমা দিতে হবে। মেডিকেল ভর্তি সার্কুলার ২০২২ আবেদন ফি ১০০০ টাকা করে। আবেদন ফি খুব সহজে মাত্র দুইটি এসএমএস এর মাধ্যমে দেওয়া যাবে। বলে রাখা ভালো, এসএমএস শুধুমাত্র টেলিটক সিমের মাধ্যমে করতে পারবেন। চলুন দেখে নেই কিভাবে দু’টি এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদন ফি পরিশোধ করবেন। 
  • ১ম SMS পদ্ধতিঃ MBBS <স্পেস> User ID লিখে Send করত হবে 16222 নম্বরে।
প্রথম এসএমএস সঠিকভাবে পাঠানো হলে আপনার মোবাইলে একটি ফিরতি ম্যাসেজ আসবে। সেখানে আবেদন ফি মূল ব্যালেন্স থেকে টাকা কেটে নেওয়ার সম্মতি চাওয়া হবে। তাছাড়া আপনাকে একটি পিন নম্বর দিবে যা দ্বিতীয় ধাপে কাজে লাগবে। 
  • ২য় SMS পাঠানোর পদ্ধতিঃ পুনরায় ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে MBBS <স্পেস> Yes <স্পেস> PIN টাইপ করে SMS পাঠান 16222 নম্বরে।
দ্বিতীয় এসএমএস সফলভাবে পাঠানোর পর আপনাকে একটি কনফার্মেশন Message দেওয়া হবে যার মাধ্যমে বুঝতে পারবেন যে পেমেন্ট সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। উক্ত কনফার্মেশন Message এ আপনাকে একটি পাসওয়ার্ড দেওয়া হবে। আপনার User ID এর সাথে Password-ও সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। ভবিষ্যতে প্রবেশপত্র উত্তোলনসহ ভর্তি পর্যন্ত বিভিন্ন কাজে এটির প্রয়োজন হবে। 
Medical Admission Circular 2022
Medical Admission Circular 2022
Medical Admission Circular 2022
Medical Admission Circular 2022
Medical Admission Circular 2022
Medical Admission Circular 2022

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সিলেবাস ২০২২

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সিলেবাস ২০২২ নিয়ে অনেকে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন। উল্লেখ্য মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২২ সম্পূর্ণ সিলেবাস অনুষ্ঠিত হবে। যদিও শুরুতে গুঞ্জন ছিল মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সিলেবাস অনুষ্ঠিত হতে পারে কিন্তু পরবর্তীতে পূর্ণাঙ্গ সিলেবাসে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 

শেয়ার করুনঃ

0 Comments

Please read our Comment Policy before commenting. ??

এডমিশন টিউন কী?